• জাতীয়: রাজধানীতে ফেরার হিড়িক, ভোগান্তিতে মানুষ *** শেখ হাসিনার ৪০তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ *** পুঁজিবাজারের ইতিবাচক পরিবর্তন, বিনিয়োগকারীরা স্বস্তিতে *** সারাদেশ: ঈদের পরদিন শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের চাপ *** সড়কে গেল ৩ ধানকাটা শ্রমিকের প্রাণ *** সারাবিশ্ব: চার দেশকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোন *** ভারতের কোভিড প্যানেলপ্রধানের পদত্যাগ *** ফিলিস্তিনে আগ্রাসন: সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ ওআইসির বৈঠক *** ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ইস্যুতে এরদোয়ান-রুহানির ফোনালাপ *** খেলাধুলা: শ্রীলঙ্কা দলের প্রত্যেকে কোভিড নেগেটিভ *** প্রথম করোনা টেস্টে নেগেটিভ টাইগাররা *** ঘোষণা: সিটিজেন জার্নালিজমকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে নিউজফ্ল্যাশ৭১; জেলা/উপজেলা/ পৌরসভা থেকে সংবাদ পাঠাতে আগ্রহীরা শিগগিরই সিভি (CV) পাঠান এই মেইলে- [email protected] *** সবধরনের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন: https://www.newsflash71.com *** সংবাদ ও ভিডিও পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিন: fb/newsflash71bd *** সব ধরনের ভিডিও চিত্র দেখতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল ভিজিট করুন: youtube.com/newsflash71 ***


করোনা চিকিৎসায় গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে বসছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট

গাইবান্ধা থেকে | প্রকাশিত: ৪ মে ২০২১ ১০:৩৭; আপডেট: ১৭ মে ২০২১ ২১:২৪

করোনা চিকিৎসায় গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে বসছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট

করোনা রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়ার জন্য গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট বসানো হচ্ছে। জেলা জেনারেল হাসপাতালের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। যা একমাসের মধ্যেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে হস্তান্তর করা হবে জানা গেছে। কিন্তু বর্তমানে হাসপাতালটিতে মেডিসিন চিকিৎসকসহ বেশকিছু চিকিৎসকের পদ শূন্য থাকায় এই প্লান্ট থেকে কাঙ্ক্ষিত সুফল লাভ বিঘ্নিত হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালটিতে ৪২ পদের বিপরীতে কর্মরত রয়েছেন মাত্র ১৮ জন চিকিৎসক। সেজন্য অবিলম্বে এ হাসপাতালে চিকিৎসকের শূন্যপদ পূরণ করা একান্ত জরুরী বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনরা।

জানা গেছে, ২০০ শয্যার এই হাসপাতালে নতুন যে ভবন তৈরি হচ্ছে তার পাশেই অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর কাজ চলছে। এ ব্যাপারে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মেহেদী ইকবাল বলেন, সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করতে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর কাজ এমনিতেই চলছিল। তবে করোনা পরিস্থিতিতে কাজ দ্রুত শেষ করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। হাসপাতালের প্রতিটি বেডেই অক্সিজেন সংযোগ দেয়ার কাজও শেষ পর্যায়ে। তবে হাসপাতালে দীর্ঘদিন থেকে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ না থাকায় এটি কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হবে। এছাড়া সার্জারি, কার্ডিওলজি, অর্থোসার্জারি, শিশু, ইএনটি, চক্ষু, চর্ম ও যৌন বিভাগে কোন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নেই দীর্ঘদিন ধরে।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, ক্রিটিক্যাল করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য যে চিকিৎসকের প্রয়োজন তাও এখানে নেই। বর্তমানে হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য ২০টি বেড রাখা আছে। অক্সিজেন ইউনিট চালু হলে শ্বাসকষ্ট, হাপানীসহ অক্সিজেন সংক্রান্ত জটিলতায় ভোগা রোগীরা সুষ্ঠু এবং দ্রুত চিকিৎসার সুযোগ পাবে।

এনএফ৭১/আরএইচ/২০২১




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

যোগাযোগ: বাড়ি-৫৪৮, রোড-১৩, বারিধারা ডিওএইচএস, ঢাকা-১২০৬

ফোন : ০২ ৮৪১৮০৭৬

ইমেইল : [email protected]

Developed with by dataenvelope
Top