• ** জাতীয় ** টিআইবি বিএনপির দালাল: ওবায়দুল কাদের ** বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস, বাড়তে পারে শীতের তীব্রতা** রাসেল হত্যা মামলায় আব্বা বাহিনীর প্রধানসহ গ্রেপ্তার ১২ ** সারাদেশ** বগুড়ার ধুনটে এক যুবলীগ নেতা ও ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে পেটালো দুর্বৃত্তরা ** বিনোদন** সন্তানের চিকিৎসার জন্য ভারতে পাড়ি জমালেন পরীমনি** সারাবিশ্ব ** ইরানের হামলার জবাব দিলো পাকিস্তান, চালালো পাল্টা হামলা ** হুথিদের আবারও ‘বৈশ্বিক সন্ত্রাসী’ ঘোষণা দিল যুক্তরাষ্ট্র** খেলা** শক্তিশালী অষ্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশের যুবারা ** সুপার ওভারের সুপার ওভারে আফগানিস্তানকে হারালো ভারত** সব ধরনের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন : https://www.newsflash71.com ** সব ধরনের ভিডিও দেখতে ভিজিট করুন : youtube.com/newsflash71 ** সব খবর পেতে লাইক দিন নিউজফ্ল্যাশের ফেসবুক পেইজে : fb/newsflash71bd **


সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত বেশ কঠিন বিষয়: আইনমন্ত্রী

রায়হান রাজীব | প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭:৩২

ছবি: সংগৃহীত

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনির হত্যাকান্ডের তদন্তে এ পর্যন্ত ১০৭ বার সময় নিয়েছে র‌্যাব। হত্যাকাণ্ডের ১২ বছর পরও বর্তমান আইনমন্ত্রী মনে করেন, প্রয়োজনে তদন্তে ৫০ বছর সময় দিতে হবে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের করা এই  মন্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেছেন সাংবাদিক নেতারা। একইসঙ্গে আইনমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিও জানানো হয়। রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সাগর-রুনি হত্যার বিচারের দাবিতে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এ দাবি জানান বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা। এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে ডিআরইউ।

বক্তারা বলেন, ২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পশ্চিম রাজবাজারের নিজ ফ্ল্যাটে খুন হন সাগর-রুনি। ঘটনার পর তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত সাহারা খাতুন ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের আশ্বাস দিলেও ১২ বছর ধরে ঝুলে আছে হত্যার তদন্ত।

ইতোমধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পিছিয়েছে ১০৭ বার। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১ ফেব্রুয়ারি আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘তদন্তে যত দিন সময় লাগে সঠিকভাবে দোষী নির্ণয় করতে, তাদের ততটুকু সময় দিতে হবে। সেটা যদি ৫০ বছর হয়, ৫০ বছর দিতে হবে।’

আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যকে ‘কাণ্ডজ্ঞানহীন’ বলে উল্লেখ করেন সমাবেশে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ খান। তিনি বলেন, ‘আমরা আইনমন্ত্রীর পদত্যাগ চাই। আমরা ৫০ বছর অপেক্ষা করব না।’

ডিআরইউর সহসভাপতি শামীম বলেন, ‘আইনমন্ত্রী যা বলেছেন, তাতে আমরা মর্মাহত হয়েছি। সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কারও কাছ থেকে এমন মন্তব্য আমরা আশা করি না।’

সাগর সরওয়ারের সাবেক সহকর্মী, মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের প্রধান বার্তা সম্পাদক রাশেদ আহমেদ বলেন, ‘সাগর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী, তেল-গ্যাস, দুর্নীতি নিয়ে রিপোর্ট করত। আমরা জানি না তার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে এসব রিপোর্টের কোনো সম্পৃক্ততা আছে কি না। আমরা দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই হত্যার তদন্ত রিপোর্ট এবং বিচার চাই।’

ডিইউজের একাংশের সভাপতি শহীদুল ইসলাম বলেন, ‘তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত সাহারা খাতুন বলেছিলেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করা হবে। কিন্তু ৪৮ দিন, ৪৮ মাস নয়, ১২ বছর পার হয়ে গেছে। কিছুদিন আগে আইনমন্ত্রী বলেছেন, বিচারের জন্য ৫০ বছর লাগতে পারে।’

ডিআরইউর সাবেক সভাপতি মোরসালীন নোমানী বলেন, ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতি যেখানে বিদ্যমান থাকে, সেখানে কিছুই থাকে না। র‍্যাব যদি না পারে, তদন্ত প্রতিবেদন না দিতে পারে, তাহলে তারা বলে দিক।’

 



বিষয়:


পাঠকের মন্তব্য

মন্তব্য পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Top